Home Blog

১৩ মিনিটেই ১ কোটি ভিউ, রেকর্ড করেই চলেছে বিটিএস ব্যান্ড

0

আবারো নতুন রেকর্ড নিয়ে হাজির হলো দক্ষিণ কোরিয়ার কে-পপ ব্যান্ড বিটিএস। তবে অন্য কারো রেকর্ড ভেঙে নয়, এবার নিজেদের গড়া রেকর্ড নিজেরাই ভেঙেছে তারা।

‘বাটার’ নামক তাদের দ্বিতীয় ইংরেজি গানটি মাত্র ১৩ মিনিটে ১০ মিলিয়ন ভিউ অর্জন করেছে। যা এখন অব্দি ইউটিউবে সর্বোচ্চ।

মুক্তির প্রথম এক ঘন্টায় গানটির ভিউ হয় ৩৪ মিলিয়ন। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত গানটির ভিউ হয়েছে ১৪ কোটি ৬৯ লাখ ৩০ হাজার ২৬৯৷

এর আগে তাদের প্রথম ইংরেজি একক গান ‘ডিনামাইট’ দিয়েও পুরো দুনিয়ায় বেশ আলোড়ন তৈরি করেছিল বিটিএস। বিলবোর্ডের তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করাসহ, গ্রামি নমিনেশনও পেয়েছিল তারা।

চলতি বছরের ২৬ এপ্রিল থেকেই বিটিএস তাদের ইউটিউব চ্যানেল ব্যাংতান ভয়েসে নতুন গান ‘বাটার’ নিয়ে দিন গোনা শুরু করে।

গানটির টিজার, ভিডিও ক্লিপ দিয়ে পুরো মাস ভক্তদের অপেক্ষায় রেখে অবশেষে ২১ মে গানটি মুক্তি দেয় তারা।

‘বাটার’ গানটি লিখেছেন রব গ্রিমাল্ডি, স্টিফেন কার্ক, রন পেরি, জেনা অ্যান্ড্রুজ, অ্যালেক্স বিলোভিটস এবং সেবাস্তিয়ান গার্সিয়া।

প্রসঙ্গত, জনপ্রিয় গানের দল বিটিএস ব্যান্ডটি ২০১০ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিওলে প্রতিষ্ঠিত হয়। এই ব্যান্ডের সদস্যরা মূলত হিপহপ ঘরানার গান গেয়ে থাকে। তাদের ব্যান্ডের ৭ সদস্য হচ্ছেন ভি, জে-হোপ, আরএম, জিন, জিমিন, জংকুক, সুগা।

আবারও ইমতিয়াজের সঙ্গে জুটি বাঁধছেন রণবীর কাপুর

0

বলিউডের অন্যতম গুণী পরিচালক বলে খ্যাত ইমতিয়াজ আলী। তার মুক্তিপ্রাপ্ত সবশেষ দুইটি সিনেমা প্রত্যাশা অনুযায়ী সাফল্য এনে দিতে না পারলেও পরিচালক হিসেবে ইমতিয়াজ আলীর অনন্য নৈপুণ্যের কথা স্বীকার করতেই হবে।

ইতিমধ্যেই বলিউডে পরিচালকদের মাঝে নিজের আলাদা একটি স্বকীয়তা তৈরি করে নিয়েছেন তিনি। গুঞ্জন উঠেছে ‘লাভ আজ কাল’ সিনেমার এ পরিচালকের সঙ্গে শিগগিরই জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন বলিউডের চকলেট বয় খ্যাত রণবীর কাপুর।

সম্প্রতি বলিউড হাঙ্গামা তাদের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করে, বর্তমানে একসঙ্গে দুটি সিনেমার কাজ করতে যাচ্ছেন ইমতিয়াজ। যার মধ্যে একটি সমালোচিত সংগীতশিল্পী আমার সিংয়ের বায়োপিক৷ অন্যটি হচ্ছে আত্মহত্যার প্রতি প্রতিরোধ গড়ে তোলার গল্পে একটি সামাজিক সিনেমা।

ইমতিয়াজের এক ঘনিষ্ঠ সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, দুইটি সিনেমা নিয়েই রণবীরের কাছে গিয়েছিলেন পরিচালক। তবে তার মধ্যে একটি সিনেমায় কাজ করবেন বলে সম্মতি দিয়েছেন রণবীর।

এবার শুধু সিনেমাটির স্ক্রিপ্ট শেষ হওয়ার পালা। খুব শিগগিরই সিনেমাটির শুটিং শুরু করবেন তারা।

প্রসঙ্গত, এবার যদি রণবীর-ইমতিয়াজ জুটি আবারো ফিরে আসে, তাহলে এটি হবে তাদের তৃতীয় সিনেমা। এর আগে ইমতিয়াজের রকস্টার এবং তামাশায় অভিনয় করেছিলেন এই চকলেট বয়।

ডিভোর্স নিয়ে যা বললেন মাহির স্বামী অপু

0

সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে ২০১৬ সালে বিয়ে করেছিলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। বেশ সুখী দম্পতি হিসেবেই পরিচিত ছিলেন তারা। যদিও বেশ কয়েকবার ভাঙনের গুঞ্জন উঠেছে। তবে প্রতিবারই স্বামীর সঙ্গে রোমান্টিক ছবি কিংবা স্ট্যাটাসে সেসব গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন ‘অগ্নি’কন্যা মাহি।

এবার আর কোনো গুঞ্জন নয়। নায়িকা নিশ্চিত করলেন তার সংসার ভেঙে যাওয়ার খবর।

এদিকে এ বিচ্ছেদ প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন মাহির স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু। তিনি বলেন, ‘কয়েক মাস ধরে আমাদের মাঝে ঝামেলা হচ্ছে। বনিবনা হচ্ছে না। তাই আমরা আলাদা থাকছি। দুই পরিবারের মতামতের ভিত্তিতেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

তিনি নিশ্চিত করেন, ডিভোর্সের বিষয়ে আইনগত প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী কিছুদিনের মধ্য।

‘এখানে টাকা-পয়সাসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আছে। আমরা চেষ্টা করেছিলাম সংসার টিকিয়ে রাখতে কিন্তু সম্ভব হলো না। কিন্তু কেউ কাউকে দোষ দিতে চাই না। ভাগ্যে এটাই হয়তো লেখা ছিল। আর কিছু বলতে চাইনা এই মুহূর্তে’- যোগ করেন অপু।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২৫ মে অপুর গলায় বিয়ের মালা দেন মাহি। দাম্পত্য জীবনের পাঁচ বছরের মাথায় আলাদা হয়ে গেলেন তারা।

শিল্পী মিতা হকের চল্লিশার টাকা গণস্বাস্থ্যে দান

0

গত ১১ এপ্রিল একুশে ও বাংলা একাডেমি পদকপ্রাপ্ত প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হক ৫৯ বছর বয়সে রাজধানীর একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। মিতা হকের চল্লিশার পুরো টাকা গণস্বাস্থ্যের নগর ডায়ালাইসিস সেন্টারে দান করেছে তার পরিবার।

রোববার (২৩ মে) দুপুরে গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে গণস্বাস্থ্যের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর হাতে চল্লিশা উপলক্ষে খরচের টাকা তুলে দেন মিতা হকের একমাত্র সন্তান ও সঙ্গীতশিল্পী জয়িতা।

এ সময় ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রখ্যাত রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী মিতা হকের একমাত্র সন্তান জয়িতা তার মায়ের চল্লিশার খরচের পুরো টাকা ডায়ালাইসিস সেন্টারে অসহায় ডায়ালাইসিস রোগীদের সেবায় দান করেছেন। জয়িতা অনুদানের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে তার কর্তব্য পালন করেছেন। আমি তার পরিবারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।’

এর পাশাপাশি দেশের ধনাঢ্য ব্যক্তিদের মানবতার সেবায় এগিয়ে আসতে আহ্বান জানান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

অনন্ত জলিলের সিনেমায় তারেক আনন্দের কথায় ইমরানের গান

0

মুক্তির অপেক্ষায় আছে অনন্ত জলিলের নতুন সিনেমা ‘দিন : দ্য ডে’৷ ছবিটিতে ব্যবহার করা হচ্ছে গীতিকবি তারেক আনন্দের কথায় ইমরানের ‘বলতে বলতে চলতে চলতে’ অ্যালবামের ‘বর্ষা চোখ’ গানটি।

গানটি যখন প্রকাশ হয় সে সময়ই অডিওতে বেশ জনপ্রিয়তা পায়। ইউটিউবে ভক্তদের বানানো শতাধিক ভিডিও রয়েছে ‘বর্ষা চোখ’ গানের। প্রকাশিত স্টুডিও ভার্সনের ভিউ কোটি ছাড়িয়ে। এবার এই গানটি অনন্ত জলিলের বিগ বাজেটে নির্মিত আলোচিত সিনেমায় জায়গা করে নিলো।

সিনেমার জন্য এই গানটির নতুন করে সংগীতায়োজন করেছেন ইমরান নিজেই। গান প্রসঙ্গে গীতিকবি তারেক আনন্দ বলেন, ‘অডিওতে এই গানের মাধ্যমে অগণিত মানুষের ভালোবাসা পেয়েছি৷ এবার গানটি আসছে বড় পর্দায়। নিঃসন্দেহে এটা আমার জন্য ভালো লাগার। অডিওর মতো সিনেমার এই গানটিও শ্রোতারা গ্রহণ করবেন বলে প্রত্যাশা করছি।’

গানের সুরকার, সংগীত পরিচালক ও গায়ক ইমরান মাহমুদুল বলেন, ‘অডিও গানটি শোনার পরই অনন্ত ভাই গানটিকে সিনেমায় ব্যাবহার করতে চেয়েছেন। তাই নতুন করে গানটির সংগীতায়োজন করেছি। আশা করছি সিনেমার দর্শকদের কাছেও এই গান ভালো লাগবে।’

গানটি প্রসঙ্গে ছবির প্রযোজক-নায়ক অনন্ত জলিল বলেন, ‘গানটির শিরোনাম ‘বর্ষা চোখ’ হওয়ার কারণেই গানটি নতুন করে করছি এবং এর চিত্রায়ণে ভিন্নতা আনা হয়েছে। আমি বরাবরই দর্শককে নতুন কিছুই দেওয়ার চেষ্টা করেছি। এটি তারই ধারাবাহিকতা বলতে পারেন।’

বাংলাদেশ ও ইরানের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘দিন : দ্য ডে’ পরিচালনা করছেন ইরানি নির্মাতা মুর্তজা অতাশ জমজম। এই ছবিতে অনন্ত’র বিপরীতে অভিনয় করেছেন তার স্ত্রী বর্ষা।

এছাড়া ইরান ও লেবাননের বেশ কয়েকজন জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীও রয়েছেন ছবিটিতে। জানা যায়, ছবিটি মুক্তি পাবে আসন্ন ঈদুল আজহায়।

করোনামুক্ত পুরো পরিবার, মুম্বাইয়ে ফিরলেন রণবীর-দীপিকা

0

করোনামুক্ত হয়ে মুম্বাইয়ে ফিরেছেন বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন। সঙ্গে ছিলেন স্বামী রণবীর সিং। রোববার (২৩ মে) মুম্বাই বিমানবন্দরে ফটোগ্রাফারদের ক্যামেরাবন্দি হন তারা। এ সময় দুজনের মুখই ছিল মাস্ক দিয়ে ঢাকা। চোখে ছিল কালো চশমা। বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে দীপিকার হাত ধরে সোজা গাড়িতে উঠে যান রণবীর।

চলতি মাসের শুরুর দিকেই প্রথমে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন দীপিকার বাবা প্রকাশ পাড়ুকোন। চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে। সংক্রমিত হয়েছিলেন দীপিকার মা উজ্জ্বলা এবং বোন অনিশাও। এর পরেই জানা যায় দীপিকার আক্রান্ত হওয়ার খবর। কয়েকদিন হাসপাতালে থেকে সেরে ওঠেন প্রকাশ। সেরে উঠেছে পুরো পরিবারও।

পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে গত মার্চে মুম্বাই থেকে বেঙ্গালুরু গিয়েছিলেন দীপিকা ও রণবীর।

ভয়ে বলিউডে কাজ করেন না শাহরুখ খানের পাকিস্তানি নায়িকা

0

পাকিস্তানের সুন্দরী মডেল ও অভিনেত্রী মাহিরা খান। বলিউডে সুযোগ পান কিং অব রোমান্স শাহরুখ খানের হাত ধরে৷ ২০১৭ সালে ‘রইস’ ছবিতে শাহরুখের বিপরীতে অভিনয় করেন তিনি। সে ছবি দিয়েই নিজেকে বলিউডে জানান দিয়েছিলেন৷ পেয়েছিলেন অনেক সিনেমার প্রস্তাব।

কিন্তু এরপর চার বছর কেটে গেলেও আর কোনো হিন্দি সিনেমায় তার দেখা মেলেনি। কিন্তু কেন?
সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এ প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন মাহিরা। সেখানে তিনি জানান, ভারত-পাকিস্তানের অতি সম্প্রতি যুদ্ধংদেহী মনোভাবই এর জন্য দায়ী। ভয়েই তিনি ভার‍তে এসে কাজ করতে পারেননি।

এমনকি ‘রইস’ সিনেমাটির প্রচারের জন্যও ভারতে আসতে পারেননি তিনি।

মাহিরা খান ছাড়াও আলি জফর, ফাওয়াদ খান প্রমুখ পাকিস্তানি শিল্পীরা বহু বছর ধরেই বলিউডে কাজ করছিলেন। কিন্তু ২০১৬ সালের উরি হামলা এবং ২০১৯ সালের পুলওয়ামা হামলার পরে দুই দেশের সম্পর্কে ছেদ ধরে। পুলওয়ামার পরে ‘অল ইন্ডিয়ান সিনে ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন’-এর তরফে ঘোষণা করা হয়, সে দেশের কোনো শিল্পী এ দেশে কাজ করতে পারবেন না।

সম্প্রতি বলিউডের এক সংবাদ সংস্থাকে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময়ে মাহিরা খান জানালেন, নিষেধাজ্ঞার পরেও একাধিক সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। ওটিটি প্ল্যাটফরর্মের জন্য তাকে ডাকা হয়েছিল। চিত্রনাট্যও পছন্দ হয়েছিল তার। ইচ্ছেও ছিল ষোল আনা। কিন্তু মনে ভয় কাজ করছিল মাহিরার। তাই সেসব সুযোগ ফিরিয়ে দেন।

তবে আবারও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে৷ এখন সুযোগ হলে বলিউডে কাজ করতে চান তিনি। মাহিরার ভাষায়, ‘এখন আমি অনেকটা সাহস অর্জন করেছি। সিদ্ধান্ত নিয়েছি, শুধু রাজনৈতিক কারণে আমার ইচ্ছেগুলোকে চেপে রাখব না। আশা করি, আমরা আবার সকলে হাত মেলাব। সে অন্য মাধ্যম হোক বা ডিজিটাল।’

সম্প্রতি ‘জি-ফাইভ’-এর একটি সিরিজে তিনি কাজ করতে যাচ্ছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

‘কে আপন কে পর’-এর জবাকে বিয়ে করেছেন নোবেল?

0

বিতর্কিত মন্তব্য করে একের পর এক আলোচনায় এসেছেন সংগীতশিল্পী মাইনুল আহসান নোবেল। এবার আরেক কারণে তিনি আলোচনায় আসলেন।

নেটমাধ্যমে অনেকে বলছেন, ভারতীয় ধারাবাহিক ‘কে আপন কে পর’-এর জবার সঙ্গে বিয়ে করে ফেলেছেন ‘সা রে গা মা পা’ খ্যাত নোবেল। সম্প্রতি ইন্টারনেটে তাদের তেমনই একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে।

তাহলে সত্যিই কি তারা বিয়ে করে ফেলেছেন? এ বিষয়ে আনন্দবাজার পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বর্তমানে আধুনিক প্রযুক্তি দ্বারা তারকাদের ছবি কাটাছেঁড়া করা নতুন ঘটনা নয়। নোবেলের এই ঘটনা তেমনি একটি। তার এক বছর আগের পুরনো ছবি এনে একজন এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন।

ইনস্টাগ্রামে ২০২০ সালে নিজের বোনের সঙ্গে একটি ছবি দেন নোবেল

২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ইনস্টাগ্রামে নিজের বোনের সঙ্গে একটি ছবি দেন নোবেল। ছবিতে দেখা যায়, নোবেল ও তার বোন একটি ফুলের মালা গলায় দিয়ে আছেন। প্রযুক্তি ব্যবহার করে সেই ছবিতে নোবেলের বোনের মুখে ‘কে আপন কে পর’ ধারাবাহিকের অভিনেত্রী পল্লবীর মুখ বসিয়ে দিয়েছেন ওই ব্যক্তি। তারপর সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘কাউকে না জানিয়ে জবা বৌদি বিয়েটা করেই ফেলল’।

এ নিয়ে একজন মন্তব্য করেছেন, ‘আহারে, শেষ পর্যন্ত মানসিক রোগী সামলানোর দায়িত্ব নিয়েছেন আমাদের প্রিয় জবা বৌদি’। আবার একজন লিখেছেন, ‘বিগত ১০ বছর ধরে স্টার জলসায় যা যা কীর্তি দেখিয়েছেন, আরও আগেই ওনার (পল্লবী) নোবেল পাওয়া উচিত ছিল’। কেউ কেউ তাদের বিয়ে নিয়ে সত্যিই উৎসাহী। কেউ আবার হেসে উড়িয়ে দিয়েছেন বিষয়টি।

এক শিশুর চিকিৎসায় বিরাট-আনুশকার ১৬ কোটি রুপির ফান্ড

0

ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও তার স্ত্রী অনুশকা শর্মা করোনার সময় মানুষের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ছেন৷ তাদের সাহায্য পাচ্ছেন বহু মানুষ৷ তারকা দম্পতি এবার আয়াংশ গুপ্তা নামের একটি শিশুর পাশে দাঁড়িয়েছেন। মাসকুলার এট্রোফি নামের বিরল রোগে আক্রান্ত শিশুর চিকিৎসায় প্রয়োজন ছিল ১৬ কোটি টাকা৷

সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, বাচ্চার চিকিৎসার ফান্ড জড়ো করার জন্য তার মা -বাবা ‘AyaanshFightsSMA’ নামে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট খুলেন৷ সেই অ্যাকাউন্ট থেকে আয়াংশের মা -বাবা এই সুখবর দিয়েছেন যে তাদের সন্তানের চিকিৎসার জন্য টাকা পাওয়া গেছে৷ বিরাট কোহলি ও অনুশকা শর্মা ফান্ড সংগ্রহে তাদের সাহায্য করেছেন৷

এই অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে বলা হয়েছে, ‘আমরা কখনোই ভাবতে পারিনি এই প্রচণ্ড কঠিন সফর এত সুন্দর ভাবে শেষ হবে৷ আমাদের এই কথা জানাতে দারুণ খুশি হচ্ছে যে আয়াংশের চিকিৎসার জন্য ১৬ কোটি টাকা প্রয়োজন ছিল আমরা তা পেয়ে গেছি৷ আমাদের যারা সাহায্য করেছেন তাদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ ৷ এটা আপনাদের জয়৷’

এরপর বলা হয়েছে ,‘কোহলি ও অনুষ্কা আপনাদের ফ্যান হিসেবে ভালোবাসতাম, কিন্তু আপনার আয়াংশের অভিযানের জন্য যা করলেন তা আশাতীত, আপনি ছক্কা মেরে আমাদের জীবনের ম্যাচ জিততে সাহায্য করলেন৷’

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে ক্ষতির আশঙ্কায় থাকা দরিদ্র নারীকে দেবের সহায়তা

0

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’। ইতোমধ্যে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী অঞ্চলে নেয়া হয়েছে ব্যাপক সতর্কতা। বন্ধ রাখা হয়েছে সমুদ্রে মাছ ধরা, খালি করা হয়েছে উপকূলীয় অঞ্চল। তবে এমন দুর্যোগে যাদের বাড়িঘর মজবুত নয় তাদের চিন্তা থেকেই যায়। এমনই একজন হলেন রাজ্যটির পশ্চিম মেদিনীপুরের সোনামুই গ্রামের বাসিন্দা শিখা চক্রবর্তী।

বাঁশের কঞ্চি, বেড়া ও মাটিলেপা ছোট একটি বাড়িতে বসবাস তার। এর আগে ‘আম্ফান’ এবং ‘বুলবুল’ শিখার মাথা গোঁজার ঠাঁইয়ের ব্যাপক ক্ষতি করেছে। তাই ধাবমান ‘ইয়াস’ নিয়ে চিন্তায় তার রাতের ঘুম উধাও। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন সাংসদ-অভিনেতা দেব।

জানা গেছে, একাধিকবার সরকারি সাহায্য চেয়েও পাননি শিখা। সম্প্রতি স্থানীয় এক গণমাধ্যমে তাকে নিয়ে করা প্রতিবেদন অনলাইনে ছড়িয়ে পরে। সেই খবর দেবের চোখে পড়তেই সোনামুই গ্রামে প্রতিনিধি পাঠান দেব। অসহায় এই নারীকে নতুন বাড়ি করে দেয়ার আশ্বাস দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি দেবের পাঠানো প্রয়োজনীয় খাবার এবং আর্থিক অনুদান তার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

শুধু তাই নয়, ঝড়ের সময় শিখা যাতে নিরাপদে থাকতে পারেন সেজন্য একটি অস্থায়ী বাড়িরও ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন দেব। তবে সেই বাড়িতে থাকতে চান না ওই নারী।